ছেলেদের পোশাকে ডানদিকে, মেয়েদের বাম দিকে বোতাম থাকে কেন?

লাইফস্টাইল

পোশাকের মধ্যে বোতাম এর কাজ কি? যদি প্রশ্ন কাউকে করা হয় তাহলে উত্তর আসবে জামা খোলা বা পড়ার জন্য। তবে কখনো কি ভেবে দেখেছেন, নারী ও পুরুষদের জামার বোতাম আলাদা দিকে কেন থাকে?? সাধারণত ছেলেদের জামার বোতাম থাকে ডান দিকে আর মেয়েদের জামার বোতাম থাকে বাম দিকে, কিন্তু কেন এই পার্থক্য জানেন কি কারন টা? আসুন জেনে নিই

আসলে কারণটা পেছনে অনেক বিতর্ক রয়েছে, অনেকে অনেক রকম ভাবে বিবৃত করেন এই ব্যাপারটিকে!

  • প্রায় 13 শতকের মাঝামাঝি সময়ে বোতাম যুক্ত পোশাকের প্রচলন শুরু হয়। এবং তখন সাধারণত ধনী মানুষ বোতাম দেওয়া পোশাক পড়তো। এবং ধনী ব্যক্তিদের জামায় থাকতো বোতাম। তাছাড়া পুরুষ মানুষ রা নিজেদের প্রচার নিজেরাই পড়তেন তাই পুরুষদের শার্টের বোতাম ডানদিকে লাগানো হতো। আবার উল্টোদিকে ধনী নারীদের পোশাক পরানোর জন্য আলাদা দাসী থাকতো। এক্ষেত্রে দাসীদের জামা পরানো সুবিধার্থে নারীদের জামার বোতাম বাম দিকে লাগানো হয়।
  • আবার কিছু জন বলেন, বেশিরভাগ মানুষই ডান হাতে কাজ বেশি করে। এবং সারা বিশ্বে বোতাম লাগানো পোশাক পুরুষরাই বেশী পড়েন। তাই ডান হাতের তাদের পোশাক খুলতে সুবিধা হত। আবার অন্যদিকে শিশুদের স্তন পান করানোর জন্য নারীরা তাদের ডান হাত মুক্ত রাখতেন তাই বাম দিকে বোতাম রাখলে নারীদের সুবিধা হয়।
  • আবার একদল ঐতিহাসিকদের মতে, এই প্রথা নাকি নেপোলিয়ন বোনাপার্টের নির্দেশেই চালু হয়। নেপোলিয়ন তার এক হাত সব সময় শার্ট এর মধ্যে বুকের কাছে ঢুকিয়ে রাখতেন। বহু নারী নাকি তার এই অভ্যাস কে নিয়ে ব্যঙ্গ করেছিলেন। তাই নেপোলিয়ন এসব ব্যঙ্গ বিদ্রুপ বন্ধ করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন শার্টের বোতাম উল্টো দিকে অর্থাৎ বাঁদিকে লাগানো হোক।

লেখা টি ভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করে অন্যকে জানতে সাহায্য করবেন, আরো কিছু এরকম তথ্য পাওয়ার জন্য নিচের আর্টিকেল পড়তে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *