সবার প্রিয় দীঘার সমুদ্র সৈকত যার বর্তমান অবস্থা আপনি শুনলে আপনার চোখ কপালে উঠবে ।

দেশ দেশ-বিদেশ

দীঘা বর্তমানে পশ্চিমবাংলার এক অন্যতম সুন্দর সমুদ্র সৈকত এবং টুরিস্ট স্পট। বর্তমানে দীঘা পশ্চিমবঙ্গের এক অন্যতম আকর্ষক। দিঘা দেখার জন্য শুধুমাত্র পশ্চিম বাংলার বিভিন্ন প্রান্তের লোক আসেন না, বহু দূর-দূরান্ত থেকে ভারত তথা ভারতের পাশাপাশি প্রতিবেশী দেশ গুলি থেকেও বহু লোক দীঘা বেড়াতেএসে থাকেন । গত কয়েক বছর আগের দীঘা আর বর্তমানের দীঘা যদি কেউ দেখে থাকেন তাহলে দুটির মধ্যে রয়েছে আকাশ পাতাল তফাৎ। অনেক বেশি উন্নত হয়েছে দীঘা বেড়েছে অনেক যোগাযোগ মাধ্যমবেড়েছে অনেক হোটেল, লজ, রেস্টুরেন্ট, বার ইত্যাদি ।দীঘায় এলে থাকা খাওয়া এমনকি আপনাকে নিয়ে দিগার বিভিন্ন প্রান্ত দেখানোর জন্য বহু লোক থেকে থাকেন। সত্যিই অনেক বেশি উন্নত হয়েছে সকালের বেশ ভালই লাগছে কিন্তু সবাই এটা খেয়াল রাখছে না যে যার জন্য আজ দীঘা মানুষের এত কাছে এসেছে সমুদ্র সৈকত আজ বিপদের মুখে। দীঘা সমুদ্র উপকূল এলাকা ছিল অনেক উঁচু বালির স্তর দিয়ে ঘেরা যার উপরে ছিল বহু ঝাউ গাছ যা বালি কে ধুয়ে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করত। এবং সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকা কে একটা বিশাল বাঁধের মতো দাঁড়িয়ে থাকে রক্ষা করছিল। জায়গায় সী বিচ হয়েছে পাথর দিয়ে ইট বালি সিমেন্ট ইত্যাদি দিয়ে চলছে সমুদ্রের জল কে আটকে রাখার চেষ্টা । আগেরি উঁচু বালির ঢিবি গুলোকে রাখা হচ্ছে না সেখানে বানানো হচ্ছে অনেক বড় বড় বিল্ডিং। হয়তো বর্তমানে কিছু সময়ের জন্য সিমেন্টের দেওয়াল দিয়ে সমুদ্রের জল কে আটকে রাখা সম্ভব হচ্ছে। প্রকৃতিকে আটকে রাখে এতটাও সোজা হয় একদিন এই সমুদ্র দীঘা কে নষ্ট করবে নইলে পড়বে অনেক দূর পর্যন্ত বালির চড়া। জানাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। এরপরই শুরু হয়েছে একে নিয়ে অনেক বড় কৌতুহল সত্যি কি দীঘার থাকবে না জানতে চাইছেন সকলেই । কিন্তু এর উত্তর দেওয়ার কেউ নেই কারণ প্রকৃতির ভবিষ্যৎ কেউই বলতে পারে না ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *