টলি সুন্দরী শুভশ্রী আর অভিনয়ে ফিরবেন না, আসল কারণটা জানুন

টলিউড বিনোদন

ঘটা করে বিয়ে হলেও, এই বিয়ে নিয়ে সমালোচনা যে হয়নি এমনটা কিন্তু নয়। টলিউডের দুই হেভিওয়েট তারকা, একজন পরিচালক আরেকজন অভিনেত্রী তাদের বিয়ে ঘিরে উন্মাদনা সমালোচনা দুটোই চলতে দেখা গেছে। বুঝতে পারছেন কার কথা বলা হচ্ছে? রাজ-শুভশ্রী। রাজ চক্রবর্তীর দ্বিতীয় বিয়ে। তাই অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলির সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধার আগে তাঁর প্রথম পক্ষের বউকে ঘিরেও চলেছে অনেক জল্পনা কল্পনা। তাইতো তাঁদের বিয়ে ঘিরে সংবাদমাধ্যম থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ কারোররই মাথাব্যথা কিছু কম ছিলনা।

অবশেষে গাঁটছড়া অবশ্য বেঁধেছেন এই দম্পতি। বিয়ের পর হানিমুন-টানিমুনের ছবিও আমদের সামনে এসেছে। সেসব ভেবে চললে এটুকুতো আন্দাজ করে নেওয়াই যায় যে বর্তমানে সুখে-সংসার করছে রাজ-শুভশ্রী।

এমনও শোনা যাচ্ছে যে, শুভশ্রী গাঙ্গুলী নাকি আর অভিনয় করবেন না। হঠাৎ করেই এমন ইঙ্গিত দিয়েছে ভারতীয় মিডিয়া। অভিনয়ের থেকে স্বামী-সংসার নিয়ে সময় কাটাতেই নাকি এখন তিনি বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছেন। আর এ কারণেই আস্তে আস্তে অভিনয় থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন টালিউডের এ জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

প্রেমের পর গত মে মাসে পরিচালক রাজ চক্তবর্তীর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন শুভশ্রী গাঙ্গুলী । এরপরই বেশ পরিবর্তন এসেছে তার জীবনে। সংসার নিয়ে এতটাই মেতে আছেন তিনি যে অভিনয় নিয়ে আর কোন পরিকল্পনাই নেই। হাতে নেই কোন কাজও। বরং সিনেমায় কাজ করার চেয়ে বিবাহিত জীবন উপভোগ করছেন বলে জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী।

তবে বিয়ের আগে শ্যুটিং করা ‘রসগোল্লা’ ছবি মুক্তি পাচ্ছে ২১ ডিসেম্বর। যদিও সিনেমায় তাকে ছোট্ট একটি অতিথি চরিত্রে দেখা গেছে। তার চরিত্রের নাম মালকানজান। আগ্রার এক বাঈজি তিনি। যার সঙ্গে রসগোল্লার আবিষ্কর্তা নবীনচন্দ্র দাশের সম্পর্ক ছিল ভাই-বোনের। নবীনচন্দ্রকে দোকান তৈরি করার জন্য টাকাও দিয়েছিলেন মালকানজান। এত ছোট চরিত্রে কাজ করতে রাজী হওয়ার পেছনে কারণ নাকি রসগোল্লার প্রতি ভালোবাসা।

বিয়ের আগে শেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘হনিমুন’। ‘রসগোল্লা’ মুক্তির ইভেন্ট ছাড়া এই মুহূর্তে হাতে কোনো প্রজেক্ট নেই শুভশ্রীর। তিনি নাকি ইচ্ছে করেই কোনো কাজ নিচ্ছেন না হাতে। বাংলার জনপ্রিয় এক দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাতকারে শুভশ্রী গাঙ্গুলী বলেন, ‘আসলে আমি এই সময়টা এনজয় করছি। বিয়ের পরের জীবনটা দারুণ লাগছে। সে কারণেই কাজ করছি না। নেক্টট ইয়ারে ‘হয়তো’ আবার শুরু করব।

তবে তার এই হয়তো শব্দটাকেই ভালোভাবে নিচ্ছে না ভারতীয় মিডিয়া। তারা দাবি করছেন, অভিনয়ে আর সেভাবে ফেরা হচ্ছেন না টালিউডের এই জনপ্রিয় নায়িকার। এরপর টুকটাক কোন ছবিতে কেবল অতিথি হিসেবেই দেখা যেতে পারে তাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *