ঋণের টাকা মেটাতে না পেরে বউকে রেখে এলেন পাওনাদারের কাছে

দেশ দেশ-বিদেশ

 

Source:- Ebela.in

আজীবন এক সাথেই থাকবেন এই আশাতেই সাধারণত সবাই বিয়ে করে থাকেন। সেই আশাতেই দুই ভাইকে বিয়ে করেছিলেন দুই বোন। প্রথম প্রথম ঠিকঠাক চলছিল তাদের বিবাহিত জীবন। কিন্তু দিন যত গড়াতে থাকে তাদের অভিজ্ঞতা তত তিক্ত হতে থাকে। আস্তে আস্তে এই অভিজ্ঞতাই বিরক্ত হয়ে শেষ পর্যন্ত পুলিশের দ্বারস্থ হন সেই দুই বোন।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী এই বিরল ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের বিরায়। দুই বোন পুলিশের কাছে অভিযোগ জানান যে সুপারির লোকজনেরা জোর করে অন্য পুরুষের সাথে সহবাসে বাধ্য করছে তাদের। মহিলারা অভিযোগ করেছেন তাদের দুই স্বামী সুহুর এবং শাশুড়ির বিরুদ্ধে। তারা অভিযোগ করেন যে তাদের স্বামীরা বাইরে থেকে অনেকের কাছেই প্রচুর ধার দেনা করেছেন। কিন্তু সময় মতো সেই ধার দেনা মেটাতে না পারায় বিপাকে পড়েছেন তাদের স্বামীরা। তাই অবশেষে বাধ্য হয়ে পাওনাদারদের দাবি মত তাদের দুই স্ত্রীকে পাঠিয়ে দেন পাওনাদারদের কাছে।

দুই বোনের অভিযোগ যে পাওনাদাররা তাদেরকে লাগাতার ধর্ষণ করেন। কোনোক্রমে সুযোগ পেয়ে পুলিশের কাছে আসেন তারা। এবং সেখানে অভিযোগ জানান ওই দুই নির্যাতিতা মহিলারা। এই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলেই জানিয়েছেন ওই থানার পুলিশ। শেষ পাওয়া খবর হিসাবে এখনো পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *